আজ বিসিবির এজিএম

প্রতি অর্থবছর বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আয়োজনের কথা থাকলেও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড তা করতে ব্যর্থ হয়েছে। প্রায় চার বছর পর বহুল প্রতীক্ষিত সেই এজিএম অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট)। রাজধানীর রেডিসন ব্লু হোটেলে দুপুর ১২টায় শুরু হবে এজিএম। সবশেষ এজিএম হয়েছে ২০১৭ সালের ২ অক্টোবর।

এই এজিএমের কয়েক মাস পরেই হবে বিসিবির নির্বাচন। তাই এটির দিকে থাকবে বাড়তি নজরও। বিসিবি’র গঠনতন্ত্রের ১২.১ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রতি অর্থবছর সমাপ্ত হওয়ার ১২০ দিনের মধ্যেই আয়োজন করতে হবে এজিএম। কিন্তু নিয়মিত সেটা আয়োজন করতে পারেনি বিসিবি। গত ১০ বছরের মধ্যে এটি তৃতীয় এজিএম। এবারের এজিএমের সকল ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্নের কথা জানিয়ে সুন্দরভাবে শেষ করার আশা করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী।

‘আপনারা জানেন যে আগামী ২৬ আগস্ট আমাদের বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। প্রকৃতপক্ষে গত তিন বছর আমাদের নানা সীমাবদ্ধতার কারণে আমরা আমাদের বার্ষিক সাধারণ সভা আয়োজন করতে পারিনি। এ বছর চেষ্টা ছিল জুলাই মাসে আমাদের এজিএমটা করার। সেটা সম্ভব হয়নি কোভিড প্রতিবন্ধকতার কারণে। এখন একটা তারিখ নির্ধারণ করেছি, আমাদের প্রস্তুতিও মোটামুটি সম্পন্ন। ইতোমধ্যে আমরা জেনেছি আমাদের অনেক কাউন্সিলর ঢাকায় অবস্থান করছেন। আশা করছি সুষ্ঠ, সুন্দরভাবে আমাদের বার্ষিক সাধারণ সভা আয়োজন করতে পারব।’

বিলম্বের কারণ ব্যাখা দিতে গিয়ে নিজামউদ্দিন বলেন, ‘কিছু সীমাবদ্ধতা তো থাকেই। আমাদের সংস্থার ধরণটাই এমন যে নানা রকমের কার্যক্রম থাকে। এসবের সাথে কোভিড পরিস্থিতি, যদিও এভাবে বলা ঠিক হবে না। সবকিছু মিলিয়েই বিলম্বটা হয়েছে।

এজিএমে সারাদেশের বিসিবির ১৬৬ জন কাউন্সিলর অংশ নেবেন। সভাপতিত্ব করবেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। ইতোমধ্যে কাউন্সিলররা রেডিসন ব্লুতে অবস্থান করছেন। তারা শেষ তিন অর্থ বছরের বাজেটের অডিট রিপোর্ট পাস করবেন। তাদের জন্য উপহারের আয়োজনও রেখেছে ক্রিকেট বোর্ড। প্রত্যেক কাউন্সিলর ১ লাখ টাকার চেক ও একটি করে ল্যাপটপ পাবেন।

এজিএমের এজেন্ডায় থাকছে প্রধান অর্থ কর্মকর্তার গত তিন বছরের আয়-ব্যয় সংক্রান্ত প্রতিবেদন উপস্থাপনা, পর্যালোচনা ও অনুমোদন, পূর্বের এজিএমের কার্যবিবরণী অনুমোদন, গত তিন বছরের প্রধান নির্বাহীর কার্যক্রমের রিপোর্ট উপস্থাপন, বিসিবি’র চলতি অর্থবছরের বাজেট পর্যালোচনা ও অনুমোদন ও আগামী বছর গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এজিএম আয়োজনের অনুমোদনসহ নানা বিষয়।

এজেন্ডা নিয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘আমাদের এজিএমে কোন এজেন্ডা থাকবে সেগুলো আমাদের গঠনতন্ত্রে বলা আছে। প্রকৃতপক্ষে বার্ষিক সাধারণ সভায় আমাদের সিইও রিপোর্ট, অডিটেড অ্যাকাউন্টস এবং বাজেট; এ বিষয়গুলোই মূলত আসে।’

দুপুর ১২টায় শুরু হওয়ার পর মধাহ্নভোজের মাধ্যমে শেষ হবে এজিএম। দুপুর ২টায় এজিএমের সার্বিক বিষয় নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করবে বিসিবি। রেডিসন ব্লুতেই এই সংবাদ সম্মেলনের কথা এক বিবৃতি দিয়ে নিশ্চিত করা হয়েছে বোর্ডের পক্ষ থেকে।