দুই বছরে বাংলাদেশে ১৪ হাজারের বেশি আত্মহত্যা

২০১৯-২০ সালে বাংলাদেশে ১৪ হাজার ৪৩৬ জন মানুষ আত্মহত্যা করছে। যার মধ্যে ২০-৩৫ বয়সেরই বেশি।

শনিবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন হলে এক আলোচনা সভায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এ গবেষণা প্রতিবেদন তুলে ধরা হয়।

অনুষ্ঠানে থাকা ঢাকা মেডিকেল কলেজের মানসিক রোগ বিভাগের রেজিস্ট্রার, মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. রাইসুল ইসলাম পরাগ জানান, পৃথিবীতে প্রতিবছর ১০ লাখের বেশি মানুষ আত্মহত্যা করে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী, আত্মহত্যা প্রবণতার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান বিশ্বে দশম।

গত একযুগে প্রকাশিত বিভিন্ন গবেষণা প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, এই হার প্রতিনিয়ত বাড়ছে। ২০১৯-২০ কোভিড সময়ে বাংলাদেশে আত্মহত্যা করছে ১৪ হাজার ৪৩৬ জন। যাদের মধ্যে ২০-৩৫ বয়সের লোকই বেশি। বর্তমানে মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের আত্মহত্যার পরিমাণ ৩ গুণ।

আলোচকবৃন্দরা বলেন, পারিবারিক নির্যাতন, কলহ, শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন, পরীক্ষা ও প্রেমে ব্যর্থতা, দারিদ্র্য, বেকারত্ব, প্রাত্যহিক জীবনের অস্থিরতা, নৈতিক অবক্ষয়, মাদক ইত্যাদি কারণে মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

তারা বলেন, আত্মহত্যা রোধে আমাদেরকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।