লালমনিরহাটে বিবাদের বলী গাছপালা!

লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার দলগ্রাম ইউনিয়নের শ্রীখাতা গ্রামের মন্দিরপাড়ায় বিরোধের জেরে রাস্তার ধারে লাগানো গাছপালা কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার, ২৭ নভেম্বর দুপুরে এলাকাটিতে গেলে এ চিত্র চোখে পড়ে।

বিবাদমান পক্ষ দুটির লোকজন ও এলাকাবাসির সাথে কথা বলে জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে উভয় পক্ষের মধ্যে জমির সীমানা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল । এরই জের ধরে সোমবার, ২৫ নভেম্বর দুপুরে ওই গ্রামের সুধীরচন্দ্র বর্মার লোকজন প্রতিবেশী দেবেন্দ্র নাথের বাড়ির সুপারী বাগানের নিরাপত্তাবেড়া ভেঙ্গে ফেলার এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাদানুবাদ ও মারামারি বেঁধে যায়।

এতে দেবেন্দ্র নাথের ছেলে নিরঞ্জন(৪০) ও নীলকান্ত (৩৫) আহত হয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়। একই হাসপাতালে ভর্তি হয় সুধীর চন্দ্র বর্মার ছেলে পরমেশ^র (২৭) ও মৃত কেশরীমোহনের ছেলে কনক চন্দ্র রায় (৬০)।

এ ঘটনায় দেবেন্দ্র নাথের জমি সংলগ্ন রাস্তার ধারে লাগানো সুপারী, আম,কাঠাল ও সজনাসহ বিভিন্ন প্রজাতির বহু গাছ কেটে ফেলে সুধীর চন্দ্র বর্মার লোকজন বলে দাবী দেবেন্দ্র নাথের পরিবারের। তবে ঘটনার সময় বাড়িতে ছিলেন না বলে দাবী সুধীর চন্দ্রের।

এদিকে, কেটে ফেলা গাছের কান্ডগুলো পড়ে থাকতে দেখা যায় দলগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে। তবে সেগুলো কে বা কারা ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে রেখেছে, তা’ জানেন না ইউনিয়নটির চেয়ারম্যান, সদস্য ও গ্রাম পুলিশের কেউ।

ঘটনার বিষয়ে দুটি পক্ষই কালীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে বলে নিশ্চিত করেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরজু মোঃ সাজ্জাদ হোসেন। উল্লেখ্য বিবাদমান রাস্তাটি সরকারি রেকর্ডভুক্ত রাস্তার পরিবর্তে ব্যাক্তি মালিকানা জমির উপর করা হয়েছে বলে জানা যায়।