১৪টি রোগ সারাতে পারে আলু!

আলু কিংবা আলু দিয়ে তৈরি খাবার খেতে কে না পছন্দ করে! এমনকি প্রতিদিনের খাবারের তালিকায়ও থাকে আলু দিয়ে তৈরি নানান পদ। শুধুমাত্র স্বাদই নয়, আলুতে রয়েছে বিভিন্ন পুষ্টিগুণ। অনেকেই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য খাদ্যতালিকা থেকে আলু একেবারেই বাদ দিয়ে দেন, কিন্তু পরিমিত পরিমাণে আলু খাদ্যতালিকায় থাকলে তা শরীরের জন্য ভালো।

আলুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে মিনারেল, ভিটামিন, কার্বোহাইড্রেট ও প্রচুর পরিমাণে ফাইবার যা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। 

বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে, আলু ১৪টি রোগ সারাতে সহায়তা করে। আসুন জেনে নিই আলু কি কি রোগ সারাতে পারে:

১. আলুতে সোডিয়াম ও পটাশিয়াম সঠিক পরিমাণে থাকে। তাই, আলু রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। 

২. আলুতে আছে ফাইবার, ভিটামিন সি ও ভিটামিন বি ৬। যা কিনা কোলেস্টরল নিয়ন্ত্রণ করে হার্টকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

৩. ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসেবেও আলু কাজ করে। আলুতে থাকা ফোলেট যা ডি.এন.এ. তৈরি ও মেরামত করতে সাহায্য করে। এ

ছাড়াও আলুতে থাকা ফাইবার কোলন ক্যান্সারের থেকে মুক্তি দিতে পারে।

৪. আলুতে থাকে আয়রন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ও জিঙ্ক। যা শরীরের গঠন মজবুত করে ও হাড়ের স্বাস্থ্য রক্ষা করে। 

৫. আলুতে আছে ফাইবার যা কিনা শরীরের হজমক্ষমতা বাড়িয়ে পাচনতন্ত্রের কার্যকারিতা সচল রাখে।

৬. আলু কিডনিতে স্টোন হওয়ার ঝুঁকি কমায়।

৭. দাঁত বা মাড়ির সমস্যা দূর করতেও সহায়তা করে আলু।

৮. পেটের নানারকম সমস্যায় আলু সেদ্ধ খেলে বেশ উপকারিতা পাওয়া যায়।

৯. আলুতে থাকা ফাইবার ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীরের ইলেক্ট্রোলাইসিস নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

১০.  আলুতে আছে কার্বোহাইড্রেট, পটাসিয়াম ও গ্লুকোজ যা কিনা মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য  ভালো রাখে।

১১. আলুতে থাকা ভিটামিন এ ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

১২. আলুতে কম পরিমাণে ফ্যাট এবং বেশি পরিমানে ফাইবার থাকে। তাই ওজন নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে আলু একেবারে বাদ না দিয়ে খাদ্য তালিকায় অল্প পরিমাণ আলু রাখলে ওজন দ্রুত কমে। 

১৩. অনিদ্রা বা কম ঘুমের সমস্যা থাকলে আলু খেলে উপকার পাওয়া যাবে।

১৪. আলুতে থাকে সঠিক পরিমাণে প্রাকৃতিক মিষ্টি পদার্থ, ফাইবার ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা মাসিকের সময়ে মেজাজ খিটখিটে হওয়া থেকে মুক্তি দেয়। এছাড়াও, এই সময় আলু খেলে শরীরের বিভিন্ন সমস্যা দূর হয়।