যে কারনে শেষ মুহূর্তে বাতিল হল শান্তর কলকাতা সফর

গতকাল হঠাৎ করেই কলকাতা যাওয়ার ডাক পান নাজমুল হোসেন শান্ত। সে মোতাবেক যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু সন্ধ্যার পর তার কলকাতা যাত্রা বাতিল করা হয়। শান্তকে কলকাতা নেওয়ার কথা ভাবা হয়েছিল মূলত ‘কনকাশন-সাব’ ব্যাটসম্যান হিসেবে বিবেচনা করে।



কিন্তু ইডেন টেস্টের যে অবস্থা তাতে সে সুযোগ পাওয়ার খুব একটা সম্ভাবনা নেই। ইডেনে রীতিমতো খেলোয়াড় সংকটে ভুগছে বাংলাদেশ। লিটন দাস ও নাঈম হাসান মাথায় আঘাত পেয়ে ম্যাচ থেকে ছিটতে গেছেন। তাদের ‘কনকাশন-সাব’ সাব হিসেবে খেলতে নেমেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম।



এদিকে এই দুইজন মাঠে নামায় দল পড়েছে সংকটে। পানি টানার জন্যও কোন খেলোয়াড় নেই। ড্রেসিং রুমে আছেন কেবল মোস্তাফিজুর রহমান। কোন ব্যাটসম্যানের যদি ‘কনকাশন-সাব’ প্রয়োজন হয় সেক্ষেত্রে নামাতে হবে বোলার মোস্তাফিজকে। এমনই হ-য-ব-র-ল অবস্থা দলের।



এ নিয়ে সমালোচনাও চলছে। এই সমালোচনার মুখে টিম ম্যানেজমেন্ট শান্তকে কলকাতায় ডাকে। শান্তও ইমার্জিং কাপের ফাইনাল শেষে কলকাতা যাওয়া প্রস্তুতি নেন। কিন্তু কালই দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামতে হয় বাংলাদেশকে। আর নেমেই সেই হতশ্রী অবস্থা। পরিস্থিতি এমন হয়েছিল যে, কালই বুঝি অল আউট হয়ে যাবে তারা।



মুশফিকুর রহীমের দৃঢ়তায় শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। ম্যাচ গড়িয়েছে তৃতীয় দিনে। কিন্তু এরই মধ্যে নেই ৬ উইকেট। ফলে বাড়তি ব্যাটসম্যান উড়িয়ে নিয়েই বা কী লাভ হবে এখন! সেই চিন্তা থেকেই বোধ হয় শান্তকে আর কলকাতা নেয়নি ম্যানেজমেন্ট।-সুত্র-পরিবর্তন