মা’র্কিন সেনা বহিষ্কারে ইরাকের পার্লামেন্টে প্রস্তাব পাস, প্রতিটি মা’র্কিন সেনা ইরাক থেকে বহিষ্কার

প্রতিটি মা’র্কিন সেনা ইরাক থেকে বহিষ্কার- ইরানের আল-কুদস ফোর্সের প্রধান মেজর জেনারেল কাসেম সোলাইমানি ও ইরাকি মিলিশিয়া বাহিনী হাশদ আস সাবির ক’মান্ডার আবু মাহদি আল-মুহান্দিস হ’ত্যাকা’ণ্ডের ঘটনায় দেশটি থেকে মার্কিন সেনা বহিষ্কারের প্রস্তাব পাস হয়েছে।

আজ রোববার ইরাকের পার্লামেন্টে আইনপ্রণেতাদের জরুরি বৈঠকে এ সংক্রান্ত প্রস্তাবটি পাস হয় বলে আনাদলু এজেন্সি জানিয়েছে। বাগদাদে মা’র্কিন ড্রোন হা’মলায় ইরানি ক’মান্ডার কাসেম সোলাইমানিকে হ’ত্যার দুই দিনের মাথায় এ প্রস্তাব পাস করল ইরাকি পার্লামেন্ট।

যুক্তরাষ্ট্রের এমন হ’ত্যাকা’ণ্ডকে নিজেদের সার্বভৌমত্বের ওপর আ’ঘাত বলে মন্তব্য করেছে ইরাক। শীর্ষ দুই ক’মান্ডারের হ’ত্যার পর ইরাকে নিয়োজিত মা’র্কিন সেনাদের দেশ থেকে বহিষ্কারের জন্য চাপ প্রয়োগ করছে দেশটির সাধারণ মানুষ।

ইরাকি জনগণ ও রাজনৈতিক নেতাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে পার্লামেন্টে জরুরি অধিবেশন ডাকেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান আদিল আবদুল মাহদি। জরুরি বৈঠকে পার্লামেন্ট সদস্যরা বিলটি পাস করিয়ে নেন। জানা যায়, বিলটির প্রতি সমর্থন জানিয়েছে ১৭০ জন সংসদ সদস্য।

বিলটি পাসের জন্য ১৫০ জন সংসদ সদস্যের সমর্থন প্রয়োজন ছিল। এক বি’বৃতিতে ইরাকের সংসদ বলেছে যে, এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা সরকারের বা’ধ্যবাধকতার মধ্যে রয়েছে। ইরাকের অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী আদিল আবদুল মাহদী বলেন, অভ্যন্তরীণ ও বাইরের

নানা প্র’তিবন্ধকতা সত্ত্বেও নৈ’তিকতা ও বাস্তবতার দিক থেকে মা’র্কিন বাহিনীকে প্র’ত্যাহার করাই হবে ইরাকের জন্য সেরা সিদ্ধান্ত। ইরাকের আ’ইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ও জ’ঙ্গিগো’ষ্ঠী আ’ইএস ঠেকাতে ইরাকের সেনাদের সহযোগিতায় পাঁচ হাজার ২০০ মা’র্কিন সৈন্য রয়েছে বলে জানা গেছে।

পার্লামেন্টের আইন বিষয়ক কমিটির প্রধান আমার আল শিবলি বলেন, আ’ইএসকে প’রাজিত করার পর মা’র্কিন সেনাদের এখন আর আমাদের প্রয়োজন নেই। দেশ রক্ষায় আমাদের স’শস্ত্র বাহিনী রয়েছে। এদিকে জেনারেল কাসেম সোলাইমানি ও ইরাকি ক’মান্ডার

নি’হত হওয়ার ঘটনায় শনিবার বাগদাদজুড়ে শোকমিছিল হয়েছে। এসময় ক্ষু’ব্ধ লোকজনকে ‘আমেরিকা সবচেয়ে বড় শয়তান’ বলে স্লো’গান দিতে দেখা গেছে। শোকার্তদের অনেকের চোখ দিয়ে পানি ঝরছিল। তারা ‘নো, নো, আমেরিকা’, ‘আমেরিকা নিপাত যাক, ইসরাইল নিপাত যাক’ বলে স্লো’গান দিচ্ছিলেন।jugantor