ভারতীয় গণমাধ্যমে শেখ হাসিনা ও তার সেই ৩ কন্যা

২০১০ সালের ৩ জুন ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছিল রাজধানীর পুরান ঢাকার নিমতলীতে। সেই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১২৪ জনের প্রাণহানি ঘটেছিল।

ওই অগ্নিকাণ্ডে সব হারানো উম্মে ফারওয়া আখতার রুনা, সকিনা আখতার রত্না ও আসমা আখতার শান্তাকে নিজের মেয়ে হিসেবে ঘোষণা দিয়ে তাদের বিয়ে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।রবিবার নববর্ষের প্রথম দিন ‘মা’ শেখ হাসিনার আশীর্বাদ নিতে গণভবনে গিয়েছিলেন সেই তিন কন্যা। তাদের সঙ্গে ছিল স্বামী- সন্তানরাও। ভারতীয় গণমাধ্যম ‘এই সময়ে’ সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, “গতকাল রবিবার বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে মায়ের আশীর্বাদ নিতে ঢাকার গণভবনে ছুটে এসেছিলেন তিন কন্যা। আগুনের লেলিহান শিখা কেড়ে নিয়েছিল নিমতলীর ১২৪ জনের প্রাণ। তিন অনাথ মেয়েকে বুকে টেনে নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্বামী-সন্তান নিয়ে এখন সুখেই দিন কাটাচ্ছেন তাঁর সেই তিন মেয়ে।

অন্যদিকে নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যাকাণ্ডের জেরে নববর্ষের উৎসব থেকে বিরত থেকেছে সোনাগাজী।  ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসা ছাত্রী নুসরাতের হত্যাকারীদের রেহাই নেই বলে  ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। দোষীদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের তিনি নির্দেশ দিয়েছেন।”

সূত্র: এই সময়