বিএফডিসির আধুনিকায়নে সরকার কাজ করছে – ড. হাছান মাহমুদ

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘বিএফডিসি আধুনিকায়নের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ৫৩ কোটি টাকা ব্যয়ে আধুনিক যন্ত্রপাতি আনা হয়েছে। এছাড়া ৩২২ কোটি টাকা ব্যয়ে বিএফডিসিতে অত্যাধুনিক একটি ভবন নির্মিত হচ্ছে। যেখানে সিনেপ্লেক্স থেকে শুরু করে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে চলচ্চিত্র নির্মাণের সুযোগ থাকবে।

বুধবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) সপ্তম জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উপলক্ষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।মন্ত্রী বলেন, চলচ্চিত্র সমাজের ক্যানভাস পরিবর্তন করে দিতে পারে। মানুষকে হাসাতে পারে ও কাঁদাতে পারে। সমাজের দর্পণ হিসেবে কাজ করে। সমগ্র পৃথিবীতে চলচ্চিত্র শিল্পের কোনো বিকল্প নেই। চলচ্চিত্র শিল্পের বিকল্প টেলিভিশন, ইউটিউব, কিংবা নেটফ্লিক্সে চলচ্চিত্র দেখা নয়। চলচ্চিত্রের বিকল্প চলচ্চিত্র, অন্যকিছু হতে পারে না। 

হাছান মাহমুদ বলেন, ১৯৫৭ সালের ৩ এপ্রিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন সরকারের মন্ত্রী হিসেবে প্রাদেশিক পরিষদে পূর্ব পাকিস্তান চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন গঠনের লক্ষ্যে একটি বিল উত্থাপন করেন। বিলটি সেদিনই সংসদে পাস হয়েছিল। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে চলচ্চিত্রের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। এজন্যই আজকের দিনটিকে জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উপলক্ষে আমরা উদযাপন করছি। জাতির জনকের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় বিএফডিসি’র মান্না ডিজিটাল কমপ্লেক্সের সামনে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে দিবসটির উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন কিংবদন্তি অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম, চিত্রনায়ক আলমগীর, ইলিয়াস কাঞ্চন, তথ্য সচিব আবদুল মালেক, বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) মহাপরিচালক হারুন-অর-রশীদ প্রমুখ।