বাংলা টাইগার্সে ফরহাদ রেজার দূর্দান্ত বোলিং, দেখেনিন শেষ ম্যাচের ফলাফল

আবুধাবি টি-টেন লিগে বাংলা টাইগার্সের ১০৭ রানের জবাবে ৫ উইকেটে জয় পায় ডেকান গ্ল্যাডিয়েটর। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে দুই উইকেট নেই বাংলা টাইগার্সের। শুরুতে আন্দ্রে ফ্লেচার ৭ ও কলিন ফিরেন ১ রানে। পরবর্তীতে চিরাগ সিরি ও রুশো



করেন ৫৮ রানের জুটি। চিরাগ ৩ ছক্কা ২৫ রান করে আউট হলেও দুর্দান্ত অর্ধশতক তুলে নেন রুশো। মাত্র ২৯ বলে ২ ছক্কা ও ৫ চারে ৫৫ রানের ঝড়ো ইনিংসে ৩ উইকেট হারিয়ে ১০৭ রান করে বাংলা টাইগার্স। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে ঝড়ো



ব্যাটিং শুরু করেন শেহজাদ। ১ ছক্কা ৫ চারে মাত্র ১১ বলে ২৮ রানের ইনিংস খেললে কোইয়াস আহমেদের বলে ফিরেন। সেই সাথে ওয়াটসন ১৬ ও পোলার্ড ১১ রান করে ফিরলে চাপে পরে গ্ল্যাডিয়েটরস। এরপর টি-টেনে অভিষেক হওয়া ফরহাদ রেজার প্রথম ওভারে



৭ রান করে ফিরেন রাজাপাকশে। কিন্তু অপর পাশে থাকা লড়েন্সের ৩ ছক্কা ২ চারে মাত্র ১৩ বলে ৩৩ রানের ইনিংসে জয় পায়। কোইয়াস আহমেদ ২ ও ফরহাদ রেজা নেন ১ টি করে উইকেট। সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ বাংলা টাইগার্স:১০৭/৩(১০), রুশো ৫৫*(২৯), চিরাগ ২৫(১৩), কটরেল ২/১৫

ডেকান গ্ল্যাডিয়েটরস:১০৮/৫(৯.১)

লড়েন্স ৩৩(১৩)*, শেহজাদ ২৮(১১)

২/১৬, রেজা ১/১১

(ফলাফলঃ ৫ উইকেটে জয়ী ডেকান গ্ল্যাডিয়েটরস)

আরো পড়ুনঃ চুড়ান্ত ভাবে জানা গেল দলের সাথে যোগ দিতে ভারত যাবেন কিনা শান্ত

ইডেন টেস্টের প্রথম দিনই মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন লিটন দাস আর নাইম হাসানকে। এ দু’জনের পরিবর্তে কনকাশন হিসেবে মাঠে নামতে হয়েছে মেহেদী হাসান মিরাজ এবং তাইজুল ইসলামকে। কিন্তু মিরাজ-তাইজুল কনকাশন হিসেবে খেলতে নেমে যাওয়ার কারণে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের জন্য যে



মাঠে পানিয়ে নিয়ে যাবে কেউ, সেই অপশন পর্যন্ত এখন খোলা নেই। এমন পরিস্থিতিতে আর কেউ যদি আহত হয়, কিংবা কনকাশন ব্যাটসম্যান প্রয়োজন হয়, তাহলে কাকে মাঠে নামাবে বাংলাদেশ দল? এমন চিন্তা থেকে দারুণ সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টকে।



শেষ পর্যন্ত জরুরি পরিস্থিতি সামাল দেয়ার জন্য ঢাকা থেকে আজ সন্ধ্যায় উড়িয়ে নেয়ার কথা ছিল ইমার্জিং দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তকে। আজ বিকেলে ইমার্জিং এশিয়া কাপের ফাইনাল শেষে সন্ধ্যায়ই কলকাতার বিমানে ওঠার কথা ছিল শান্তর।



কিন্তু সন্ধ্যার পর আবার তার কলকাতা যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। কেন হঠাৎ করে শান্তকে ডেকে নেয়া, আবার কেন তার যাত্রা বাতিল করা হলো, সে ব্যাখ্যা পুরোপুরি পাওয়া যায়নি। অর্থ্যাৎ, হঠাৎ যেভাবে ডাক আসলো, সেভাবেই হঠাৎ তার যাত্রা বাতিল ঘোষণা করা হলো।



তবে বিসিবির সূত্র জানিয়েছে, কলকাতা টেস্টের যে অবস্থা, তাতে আর হয়তো কনকাশন হিসেবে কাউকে নেয়া প্রয়োজন নাও হতে পারে। এ কারণে, শান্তর যাত্রা বাতিল করা হয়েছে হয়তো। তবে, আজ শেষ দিকে এসে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ডান পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ে হঠাৎ টান লাগার কারণে চিন্তা বেড়েছে টিম ম্যানেজমেন্টে। যেহেতু আজকের দিনটা কাটানো গেছে, কাল সকালে হয়তো আবারও ব্যাট করতে নামতে পারবেন রিয়াদ। যদিও এ সম্পর্কে টিম থেকে এখনও কিছু জানা যায়নি।