বাংলাদেশের প্রশংসা করে সত্যটা বলে দিলেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা

মুশফিকুর রহিমের অসাধারণ ফিনিশিংয়ে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভারতকে সাত উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে এটাই বাংলাদেশের প্রথম জয়। একইসাথে জয়ে সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালবিহীন নতুন

বাংলাদেশ জিতল ব্যাটে-বলে দাপট দেখিয়েই। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ভারতকে নাগালেই রাখে বাংলাদেশ। নির্ধারিত ২০ ওভারে ভারতের সংগ্রহ ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রান। জবাবে সাত উইকেট ও তিন বল হাতে রেখেই জিতে যায় বাংলাদেশ।মাঝারি রান তাড়া করতে গিয়ে প্রথম ওভারেই ফিরে যান বাংলাদেশের

ওপেনার লিটন দাস (৭)। দীপক চাহারের বলে লোকেশ রাহুলকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। লিটন ফেরার পর সৌম্য সরকারের সঙ্গে ইনিংস মেরামতের কাজ চালিয়ে যান অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাঈম। কিন্তু ব্যক্তিগত ২৬ রানে যুবেন্দ্র চাহালের শিকার হয়ে ফিরে যান তিনিও। ২৮ বলের ইনিংসে ছিল দুটি চার ও একটি ছক্কা।

নাঈম ফেরার পর মুশফিকুর রহিমকে সঙ্গে নিয়ে রান বাড়াতে থাকেন সৌম্য। দুজনে গড়েন ৬০ রানের জুটি। ৩৫ বলে ৩৯ রান খলিল আহমেদের বলে করে ফেরেন সৌম্য।এরপর ফিনিশিংয়ের গুরুদায়িত্বটি পালন করেন মুশফিক। খলিল আহমেদের করা ১৯তম ওভারে তাঁকে টানা চারটি চান হাঁকিয়ে জয়ের বন্দরের

দিকে এগিয়ে যান বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক। শেষ পর্যন্ত মুশফিক অপরাজিত ছিলেন ৬০ রানে। ৪৩ বলের ইনিংসে ছিল আটটি চার ও একটি ছয়। সঙ্গী মাহমুদউল্লাহ করেন ৭ বলে ১৫ রান।এর আগে দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ দলপতি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। তাঁরা দলীয় ১০ রানের ওপেনার রোহিত শর্মার উইকেট হারায়। বাংলাদেশের পেসার শফিউল ইসলামের করা ইনিংসের প্রথম বলে চার মেরে রানের খাতা খোলেন রোহিত। ওভারের শেষ বলে রোহিতকে এলবিডব্লিউ বানিয়ে আউট করেন এই পেসার।

এরপর ভারতের ইনিংস গড়ার চেষ্টা করেন শিখর ধাওয়ান এবং লোকেশ রাহুল। শফিউল, আল আমিন এবং মুস্তাফিজদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে পাওয়ার প্লেতে হাতখুলে খেলতে পারেনি দলটি।ধাওয়ান এবং রাহুল যোগ করেন ২৬ রান। পাওয়ার প্লের পরেই লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকে বোলিংয়ে আনেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সফলও হয়েছেন।

এই ম্যাচটা কোনভাবেই মেনে নিতে পারছেন না রোহিত।রোহিত বলেন, আসলে এই ম্যাচটা আমাদের আরো ভালোভাবে মনোযোগ দেওয়া উচিত ছিলো। আমার ফিল্ডিং সাজানোয় কিছুটা সমস্যা ছিলো। আশা করি সবকিছুই খুব দ্রুত সময়ের মাঝে ঠিক হয়ে যাবে। তবে বাংলাদেশ দলের মুশফিক খুব ভালো খেলেছে।