খবর পড়ছেন উপস্থাপক, পেছনে দাঁড়িয়ে তালেবান

টেলিভিশনের নিউজরুমে উপস্থাপক খবর পড়ছেন। অস্ত্র হাতে দুই তালেবান যোদ্ধা ঠিক তার পেছনে দাঁড়িয়ে। এদের মধ্যে একজন আবার উপস্থাপককে বন্দুকের নল দিয়ে খোঁচাও দিচ্ছেন। তারা বলতে বাধ্য করছেন ইসলামিক আমিরাতে আফগান নাগরিকদের ভয়ের কিছু নেই। নেট দুনিয়ায় সম্প্রতি এমনই এক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়াটুডে’র প্রতিবেদনে বলা হয়, নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে মাসিহ আলিনিজাদ নামের এক আফগান নারী ভিডিওটি পোস্ট করেছেন। তিনি লিখেছেন, “পরিস্কার বোঝা যাচ্ছে আতঙ্কিত উপস্থাপকের পেছনে অস্ত্র হাতে দাঁড়িয়ে আছে দুই তালেবান জঙ্গি। সঞ্চালককে তারা বলতে বাধ্য করছেন ইসলামিক আমিরাতে আফগান নাগরিকদের ভয়ের কিছু নেই। লাখো মানুষের মনে ভয়ের কারণ হয়ে আছে তালেবান। এটি তারই একটি প্রমাণ মাত্র।”

ভিডিওটি আলিনিজাদই ছাড়াও অনেক সংবাদকর্মী শেয়ার করেছেন। বিবিসি’র সাংবাদিক ইয়ালদা হাকিমও একই ভিডিও পোস্ট করেছেন। ইয়ালদা হাকিম লিখেছেন, “আফগানিস্তানে এই মুহূর্তের রাজনৈতিক বিতর্কের একটি দৃশ্যপট মাত্র।”

ভিডিওটিতে দেখা যায়, স্টুডিওতে অস্ত্র হাতে তালেবান। তারা উপস্থাপকের চেয়ারের পেছনে দাঁড়িয়ে উপস্থাপকের পিঠে অস্ত্র তাক করে আছেন। কিংকর্তব্যবিমূঢ় ও ভীত হয়ে কাঁপা গলায় খবর পড়ছেন উপস্থাপক।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের শেষ সময়ের আগেই তালেবান দেশটির ক্ষমতা দখল করেছে। ক্ষমতা দখলের পর প্রথম সংবাদ সম্মেলনেই ঘোষণা দেয়, দেশের সংবাদমাধ্যম হবে স্বাধীন। কিন্তু একের পর এক নারী সাংবাদিককে বরখাস্ত করেছে তালেবান। সংবাদমাধ্যমগুলোকে নিজেদের অনুকুলে নিয়েছে তালেবান।