দল থেকে পরগাছা পরিষ্কারের চেষ্টা চলছে: কাদের

আওয়ামী লীগ থেকে পরগাছা পরিষ্কারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশের বিষয়টি দীর্ঘদিনের। দলে আগাছা-পরগাছা পরিষ্কারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, দলের পাঁচটি সহযোগী সংগঠনের কমিটি দেয়া হয়েছে৷ সেখানে আমরা স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতৃত্ব উপহার দিয়েছি। এ ছাড়া ৭০ জেলা-উপজেলায় কমিটি হয়েছে। সেখানেও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতৃত্ব আনা হয়েছে।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় বিআরটিসির মতিঝিল ডিপোতে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান দেয়া বাস বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কাছে হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

দলে অনুপ্রবেশকারীদের তালিকা করা হয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমাদের কাছে সারাদেশের অনুপ্রবেশকারী ও বিতর্কিতদের তালিকা প্রধানমন্ত্রী দিয়েছেন। সেই তালিকা বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্তদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে৷ অভিযোগ প্রমাণ হলে তাদের আওয়ামী লীগে থাকার অধিকার নেই।’

বিএনপির সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি সর্বকালের একটি ব্যর্থ দল৷ দলের চেয়ারম্যান জেলে। তার জন্য একটা মিছিলও করতে পারেনি তারা। দেশে ব্যর্থ হয়ে বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে দলটি।

বিএনপি নালিশ পার্টিতে পরিণত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, বিএনপি একটি নালিশ পার্টিতে পরিণত হয়েছে৷ নেতৃত্ব নিয়ে তাদের নিজেদের ঘরে অনেক প্রশ্ন উঠছে৷ তাদের কেন্দ্রীয় নেতারাও বলেছেন- খালেদার মুক্তি আন্দোলনে একটি কর্মসূচিও তারা দিতে পারেননি। এখন তারা নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করার জন্য সরকারবিরোধী লাগামহীন বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন।

বিএনপি নেতাদের মুখের ওপর সরকারের নিয়ন্ত্রণ নেই জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের সবখানে নিয়ন্ত্রণ রয়েছে, শুধু বিএনপির অপপ্রচারের নিয়ন্ত্রণ নেই। বিএনপিকে নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করার অনুমতি দেয়া হয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমি সকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি আমাকে জানিয়েছেন, নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করার জন্য বিএনপিকে অনুমতি দেয়া হয়েছে। তারা সেখানে সমাবেশ করবেন।