জাতির উদ্দেশে ভাষণে যা বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

সুর ন’রম-সো’লেই’মা’নি হ’ত্যার প্র’তিশোধে ই’রাকে অবস্থিত যু’ক্তরাষ্ট্রের দুটি বি’মানঘাঁ’টিতে মঙ্গলবার গভীর রাতে ই’রান ২২টি ক্ষে’পণা’স্ত্রের মাধ্যমে যে হা’মলা চালিয়েছে তা নিয়ে জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে মা’র্কিন প্রে’সিডেন্ট ট্রা’ম্প বলেছেন, ম’ধ্যপ্রাচ্যে যু’দ্ধ নয় শা’ন্তি চান তিনি।

ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওসহ শীর্ষ জেনারেলদের নিয়ে নির্ধারিত সময়ের ৩০ মিনিট পর ট্রা’ম্প বক্তব্য শু’রু করে বলেন, ইরা’কে সাম’রিক ঘাঁ’টিতে হা’মলার পর বোঝা যাচ্ছে যে, ই’রান তার অ’বস্থান থেকে স’রে আসছে। ই’রানের হা’মলায় কো’নো মা’র্কিনি হ’তাহ’ত হয়নি বলে জানান তিনি।

ট্রা’ম্প বলেন, গত সপ্তাহে আম’রা বি’শ্বের শীর্ষ এক স’ন্ত্রা’সীকে স’রিয়ে দি’য়েছি। আম’রা চাই ই’রান সং’ঘা’তের পথ প’রিহার করে তার উ’জ্জ্বল ভ’বিষ্যতের দিকে ন’জর দেবে। যদি তারা শা’ন্তির পথ বেছে না নেয় তাহলে দেশটির ওপর আরও ক’ঠোর নি’ষেধা’জ্ঞা আ’রোপ করা হবে। তবে এ নিয়ে বি’স্তারিত কিছু ব’লেননি তিনি।

হো’য়াইট হা’উসে দে’য়া ওই বি’বৃতিতে ট্রা’ম্প বলেন, এটা বোঝা ‌যাচ্ছে যে ই’রান তার অ’বস্থান থেকে স’রে দাঁ’ড়াচ্ছে। আর তাই ওয়া’শিংটন এর কোনো প্র’তিক্রিয়া জা’নাবে না। যতদিন আমি নেতা আছি, ই’রান কোনোভাবেই পা’রমাণ’বিক অ’স্ত্র অ’র্জন করতে পারবে না।

তিনি ন্যাটো সাম’রিক জোট’কে ম’ধ্যপ্রাচ্যে আরও বেশি ম’নযোগ দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত, ট্রা’ম্প এর আগে হু’মকি দিয়ে ব’লেছিলেন ই’রান যদি কোনো মা’র্কিনি না’গরিক কিংবা স্থা’পনায় হা’মলা করে তা’হলে স’ম্পূর্ণরু’পে সেই হা’মলার জ’বাব দেয়া হবে।

হা’মলার প’রপ’রই এর আগে ট্রা’ম্প এক টু’ইট বা’র্তায় বলেছিলেন, ‘সব ঠিক আছে, ই’রাকে দুটি বি’মান ঘাঁ’টিতে ই’রান ক্ষে’পণা’স্ত্র ছু’ড়েছে। ক্ষ’য়ক্ষ’তি এবং হ’তাহ’তের তথ্য মূ’ল্যায়ন করা হচ্ছে। যা হয়েছে, ভা’লো হয়েছে! আমাদের রয়েছে সবচেয়ে ক্ষ’মতা’ধর এবং সু’সজ্জিত সাম’রিক বা’হিনী। বি’শ্বের নানান স্থানে তারা রয়েছে।’

সোলেই’মানি হ’ত্যার পর চ’রম সাম’রিক উত্তে’জনার মধ্যেই গতকাল ট্রা’ম্প ই’রানের ৫২টি সাং’স্কৃতিক স্থা’পনা তাদের হা’মলার ল’ক্ষ্যব’স্তু বলে হু’মকি দিয়েছিলেন। ই’রান যদি প্র’তিশোধের হা’মলা করে তাহলেই তাদের এসব গু’রুত্বপূর্ণ সাং’স্কৃতিক স্থাপনায় শ’ক্তিশা’লী হা’মলা করা হবে বলে জানান তিনি।

জে’নারেল সো’লেই’মানি হ’ত্যার পর প্র’তিশোধের এই হা’মলা চালায় ই’রান। তে’হরান বলছে, সো’লেই’মা’নি হ’ত্যার ব’দলা নি’তেই এ হা’মলা। হা’মলার পর ই’রানের প’ররাষ্ট্র’মন্ত্রী বলেছেন, তারা কোনো যু’দ্ধ চায় না। এ’ছাড়া ফের মা’র্কিন হা’মলা হলে যু’ক্তরা’ষ্ট্রের মূল ভূ’খণ্ডে আ’ঘাত করা হবে বলে হু’মকি দিয়েছে আই’আ’রজিসি।

ই’রান ব’লছে, ই’রাকে যু’ক্তরাষ্ট্রের দুটি সাম’রিক বি’মান ঘাঁ’টিতে ক্ষে’পণা’স্ত্র হা’মলায় অন্তত ৮০ জন ‘মা’র্কিন স’ন্ত্রাসী’ নি’হত হয়েছে। স্থানীয় সময় ম’ধ্যরাতে ই’রাকের পশ্চি’মাঞ্চলে অ’বস্থিত আইন আল আ’সাদ এবং কুর্দি’স্তানের ই’রবিলের মা’র্কিন ঘাঁ’টিতে ক্ষে’পণা’স্ত্র ছো’ড়ে ই’রান।dainikamadershomoy