জনসমুদ্র তেহরানে, কা’ন্নায় ভেঙে পড়লেন খামেনি পড়ালেন সো’লেই’মানির জানাজা

কা’ন্নায় ভেঙে পড়লেন খামেনি পড়ালেন সো’লেই’মানির জানাজা। গেল শুক্রবার মা’র্কিন হা’ম’লা’য় নি’হত ইরানের কুদস ফোর্সের প্রধান কাসেম সোলে’ই’মানির জানাজা পড়ালেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। আজ ৬ জানুয়ারি

সোমবার তেহরানে কুদস ফোর্সের এই প্রধানের ম’র’দহের প্রতি রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা শেষে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি-সহ অন্যান্য বাহিনীর শীর্ষ কর্মক’র্তারা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর অ’ভিজাত

শাখা কুদস ফোর্সের প্রধানের ম’রদেহ তেহরানে পৌঁছায় সোমবার সকালে। ইরানের শীর্ষ এই জেনারেলের ম’র’দেহের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তেহরানের রাস্তায় নামে লাখো জনতা ঢল। এ সময় ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানাজার নামাজ সরাসরি সম্প্রচার করে।

এদিন টেলিভিশনে দেখা যায়, রাজধানীর রাস্তাজুড়ে হাজার হাজার মানুষ যুক্তরাষ্ট্রবিরোধী স্লোগান ও হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে জড়ো হয়েছেন। এ সময় এক ভাষণে সো’লাই’মানির মেয়ে জয়নব সো’লাই’মানি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে উন্মাদ সম্বোধন

করে বলেন, ‘আমা’র বাবার হ’ত্যা’র সঙ্গে সঙ্গেই সব কিছু সমাপ্ত হয়ে গেছে বলে মনে করলে ভুল করবেন ট্রাম্প। অন্ধকার দিনগুলো মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত হোন। এদিকে জানাজার নামাজ পড়ানোর সময় আয়াতুল্লাহ আল খামেনির চোখে অশ্রু দেখা যায়।

তেহরান বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে জানাজার নামাজ শেষে ইরাকে মা’র্কিন হা’ম’লা’য় নি’হত সোলাই’মানিসহ বাকি সেনা কর্মক’র্তাদের ম’রদেহ ইরানের দক্ষিণাঞ্চলে ধ’র্মীয় নগরী কোমে নেওয়া হবে। জানা যায়, কোম নগরীতে সো’লাই’মানির জানাজার নামাজ শেষে তার জন্মস্থান কেরমান প্রদেশে ম’র’দেহ নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানেই তার শেষ জানাজার নামাজ শেষে দাফন করা হবে।