খেলা শেষ না হতেই ৫ মিনিট আগেই মাঠ ছেড়ে গেল জার্মান দল

৫ মিনিট আগেই মাঠ ছেড়ে গেল জার্মান দল-১-১ সমতায় খেলা চলছিল। কিন্তু ম্যাচ শেষ হতে পাঁচ মিনিট বাকি থাকতেই মাঠ ছেড়ে গেল জার্মান ফুটবল দল। শনিবার রাতে জাপানের ওয়াকাইয়ামার মাঠে হন্ডুরাসের বিপক্ষে খেলতে নেমে এ বিস্ময়কর ঘটনা ঘটিয়েছে জার্মান

ফুটবল দল। জার্মান দলের দাবি— দলের ডিফেন্ডার জর্ডান টনারিগার বর্ণবাদী আচরণের শিকার। জার্মান দল ফুটবলে বর্ণবাদী আচরণের ঠাঁই নেই। এ বিষয়ে প্রতিবাদী তারা। তাই খেলা শেষ না করেই মাঠ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন তারা। করোনা সতর্কতায় ওই ম্যাচে গ্যালারি

দর্শকশূন্য ছিল। তবে বর্ণবাদী মন্তব্য ছুড়ল কে বা কারা? স্বভাবতই অভিযোগের আঙুল উঠেছে— প্রতিপক্ষ হন্ডুরাসের খেলোয়াড় কিংবা ম্যাচ অফিসিয়ালদের ওপর। এ বিষয়ে টুইটারে জার্মান দল জানায়— ‘আমরা ১-১ সমতায় লড়ছিলাম, ম্যাচটি শেষ হওয়ার কথাই ছিল।

কিন্তু এ সময় আমাদের ডিফেন্ডার জর্ডান টুনারিগা বর্ণবাদের শিকার হন। প্রতিবাদস্বরূপ আমাদের খেলোয়াড়রা মাঠ ছেড়ে যান।’ খেলা শেষ না করে উঠে যাওয়াই সঠিক সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন জার্মান কোচ স্টেফান কুন্টজ। তিনি বলেন, ‘যদি আমাদের কেউ বর্ণবৈষম্যমূলক

আচরণের শিকার হয়, তা হলে খেলে যাওয়ার কোনো অর্থ হয় না। আমরা আমাদের খেলোয়াড়কে পুরোপুরি সুরক্ষায় রাখব।’ তবে কোনো বর্ণবাদমূলক মন্তব্য করা হয়নি বলে দাবি করেছে হন্ডুরাস ফুটবল ফেডারেশন। ফেডারেশনের টুইটে লেখা হয়েছে— ‘জার্মান এক

খেলোয়াড় হন্ডুরাস দলের একজনের ওপর বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ তুলে খেলা শেষ না করেই পুরো দল নিয়ে মাঠ ছেড়ে চলে যান। এই বিষয়ে হন্ডুরাস ফুটবল ফেডারেশন জানাচ্ছে যে, পরিস্থিতিটা সৃষ্টি হয়েছে মাঠে দুপক্ষের ভুল বোঝাবুঝি থেকে।’ এদিকে টুনারিগার এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছে তার ক্লাব হের্থা বার্লিন। আগামী বৃহস্পতিবার ইয়োকোহামায় অলিম্পিকে ব্রাজিলের বিপক্ষে নামবে জার্মানি। এর আগে হন্ডুরাসের বিপক্ষে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে নেমেছিল কুন্টজের দল।