‘খুরুশকুলে হবে আধুনিক শুঁটকির হাট’

কক্সবাজার বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার লক্ষ্যে ওখানকার শুঁটকি পল্লীকে খুরুশকুলে স্থানান্তর করা হবে। সেখানে হবে আধুনিক শুঁটকির হাট।

রোববার (২৯ আগস্ট) কক্সবাজার বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণের কাজ উদ্বোধনকালে ভিডিও কনফারেন্সে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কক্সবাজার বিমানবন্দরের আশেপাশে রয়েছে বৃহৎ শুঁটকি পল্লী। তাই পর্যটকরা বিমানবন্দরে বিমান থেকে নামলেই শুঁটকির গন্ধ পেতেন। কিন্তু এখন বিমানবন্দরের আশেপাশের শুঁটকি পল্লী খুরুশকুল আশ্রয়ণ কেন্দ্রে পুনর্বাসন করা হবে। এরপর সেখানে বড় শুঁটকির মার্কেট তৈরি করা হবে। দেশি বিদেশি পর্যটককে আর বিমানবন্দরে নেমে শুটকির গন্ধ পেতে হবে না। খুরুশকুল আশ্রয়ণকেন্দ্রে গিয়ে গন্ধ ছাড়া শুটকির হাট উপভোগ করতে পারবেন সকলে।’

প্রসঙ্গত, রোববার (২৯ আগস্ট) বেলা ১১:১৫ মিনিটে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কক্সবাজারে দেশের দীর্ঘতম বিমানবন্দর রানওয়ে সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতে দেশের সর্ববৃহৎ রানওয়েসমৃদ্ধ বিমানবন্দর হিসেবে পরিচিত পাচ্ছে কক্সবাজার।