এরশাদের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে: জিএম কাদের

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানিয়েছেন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মুহম্মদ (জিএম) কাদের। বুধবার রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, পল্লীবন্ধুর ফুসফুস ও কিডনি কিছুটার উন্নতি করেছে। এ ধারা আরও ২-৩ দিন অব্যাহত থাকলে সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সুস্থ হয়ে উঠবেন। এখন তার অবস্থা সন্তোষজনক। তবে চিকিৎসকরা এখনও শঙ্কামুক্ত বলছেন না। তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছেন।

জিএম কাদের বলেন, আজ বেলা ১১টার দিকে আমি সিএমএইচে চিকিৎসাধীন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কাছে গিয়ে কথা বলেছি, কপালে হাত দিয়েছি। তখন তিনি চোখ মেলে আমার কথা শুনেছেন।

তিনি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সুস্থতা ও রোগমুক্তির জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও সংসদে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি, সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা এবং জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দেশবাসীর কাছে অনেক জনপ্রিয় নেতা। তার গ্রহণযোগ্যতা অতুলনীয়। তাই দেশবাসী সারাক্ষণ পল্লীবন্ধুর শারীরিক অবস্থার সবশেষ অবস্থা জানতে চান। এ জন্য জাতীয় পার্টির প্রতিদিনের ব্রিফিংয়ের বাইরে অন্য কোনো সূত্র থেকে পাওয়া এরশাদকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য গণমাধ্যমকর্মীদের এড়িয়ে চলতে অনুরোধ করব।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়, মো. আজম খান, ভাইস চেয়ারম্যান- মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, যুগ্ম মহাসচিব- হাসিবুল ইসলাম জয়, সম্পাদকমণ্ডলী সদস্য- মো. শামসুল হক, শাহজাহান মনসুর, অ্যাডভোকেট আহমেদ শফি রুবেল, এমএ রাজ্জাক খান।