জিনপিং ও বাইডেন: ঠিক কোথা থেকে ছড়াল করোনা?

করোনা মহামারির শুরুটা ঠিক কোথা থেকে হল? চিনে (China) নাকি অন্য কোথাও উৎস করোনার (Covid 19)? এই নিয়েই এ বার সরাসরি কথা বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (Joe Biden) ও চিনের প্রেসিডেন্ট জি জিনপিং (Xi Jinping)। ফোনে তাঁদের মধ্যে দীর্ঘক্ষণ কথা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে, যার মধ্যে উঠে এসেছে একাধিক বিষয়। আর সেই কথোপকথনেই আলোচনা হয়েছে করোনার মূল উৎস নিয়ে। উৎস জানাটা যে প্রশাসনের অন্যতম লক্ষ্য, সেই আলোচনাও হয়েছে। হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে এই কথোপকথনের বিষয়টি সামনে আনা হয়েছে।

গত শুক্রবার এই দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে কথা হয়েছে বলে হোয়াইট হাউসের তরফে জানিয়েছেন প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি। তিনি জানিয়েছেন, করোনাত উৎস নিয়ে তদন্ত করার বিষয়ে কথা হয়েছে দু’জনের। তবে এই বিষয়ে ঠিক কী কথা হয়েছে, সেই বিস্তারিত তথ্য সামনে আনেননি তিনি। গত মাসেই এই করোনার প্রকৃত উৎস সামনে আনার বার্তা চিনকে দেন জো বাইডেন। বিশ্ব জুড়ে যে ভাইরাসের দাপটে এখনও পর্যন্ত প্রায় ৪৮ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বেজিং-এর সাহায্য ছাড়া চিনের ল্যাব-টির থেকেই কি ছড়িয়েছে এই ভাইরাস? সেই রহস্য এখনও সমাধান করতে পারেননি বিশেষজ্ঞরা। মহামারির উৎস খোঁজার ব্যাপারে চিন সাহায্য করছে না বলে যে অভিযোগ জানিয়েছে আমেরিকা, তা প্রথম থেকেই খারিজ করে আসছে চিন।

৯০ মিনিট অর্থাৎ প্রায় দেড় ঘণ্টা কথা হয় বাইডেন ও জিনপিং-এর। গত সাত মাসে প্রথমবার এই কথোপকথন হল। আমেরিকার তরফে এক আধিকারি জানিয়েছেন, চিন যদি ভাইরাসের উৎস খোঁজার ক্ষেত্রে সাহায্য না করে, তার জন্য চিনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া হবে কি না, সেই আলোচনা করেননি বাইডেন। অন্যদিকে, হোয়াইট হাউস সূত্রে খবর, জিনপিং এই বিষয়ে বলেছেন যাতে দুই দেশ পরস্পরের প্রতি সম্মান বজায় রাখে ও দুই দেশের মধ্যে যে ফারাক আছে সেটার ক্ষেত্রেও সামঞ্জস্য রাখে।

প্রেসিডেন্ট পদে এসে করোনা ভাইরাসের উৎস কোথায়, সেটি তদন্ত করে দেখার জন্য আমেরিকার গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে নির্দেশ দেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে তাদের চেষ্টা দ্বিগুণ করার জন্য বলা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে তাঁর কাছে দ্রুত রিপোর্ট জমা দিতেও বলেন তিনি। ২০১৯ সালের শেষের দিকে চিনের শহর উহানে কোভিড-১৯ প্রথম শনাক্ত হয়েছিল। তারপর থেকে বিশ্ব জুড়ে ক্রমশ বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনাভাইরাসের উৎপত্তির জন্য চিনের একটি বাজারের কথা সামনে এসেছিল। চিনের আবার পাল্টা দাবি, আমেরিকার গবেষণাগার থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে। কোন প্রাণীর কাছ থেকে এই ভাইরাস মানব দেহে এসেছে নাকি গবেষণাগার থেকেই এর উৎপত্তি ঘটানো হয়েছে, সেটাই জানতে চান বাইডেন।